রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন

দেনার দায়ে ডুবেছিল পরিবার, আমি স্পটবয়ের কাজ করতাম – অভিষেক!

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৭ জুলাই, ২০২৪

জমজমাট ডেস্ক

৯০ দশকের শেষের দিকে। হঠাৎই অমিতাভ বচ্চনের ভাগ্য বদলে যায়। নিজের প্রযোজনা সংস্থা খুলে বিপদে পড়তে হয় বলিউড শাহেনশাহকে। তিনি ব্যবসা করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু ক্রমেই ধারদেনায় ডুবতে বসেছিল তার প্রযোজনা সংস্থা। দেওয়ালে পিঠ ঠেকার আগেই অনেকে পেয়েছিলেন তার আঁচ। তালিকা থেকে বাদ পড়েননি শাহেনশাহ পুত্র অভিষেক বচ্চনও। মাঝ পথে বিদেশের লেখাপড়া থামিয়ে দেশে ফেরত আসে অভিষেক বচ্চন। কলেজ ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন অভিষেক। ফিরে এসেছিলেন বাবার কাছে। সেই সময় কাজের প্রয়োজনও ছিল। যোগ দিয়েছিলেন একটি প্রযোজনা সংস্থায়। তবে প্রাথমিকভাবে তিনি স্পটবয়ের কাজই করতেন।

এক সাক্ষাৎকারে অভিষেক জানান, সেই সময় অন্দরমহলের অবস্থা কতটা কঠিন ছিল। কতটা পরিশ্রম করতে হয়েছে তাকে।

অভিষেক বলেন, শুরুতে আমি চা বানাতাম। আমার বন্ধু সিকান্দরের বাবা গৌতম ওই প্রযোজনা সংস্থার সিইও ছিলেন। তিনি হঠাৎ একদিন আমাকে বলেন- সেটে এসো, চা বানাতে শুরু করো। আমি তাকে প্রশ্ন করেছিলাম, কেন? তিনি বলেছিলেন, চিনির ব্যবহার বেশি হচ্ছে। এখানেই শেষ নয়, বাবার সংস্থার জন্য অনেক ঝড়ও পোহাতে হয়েছে তাঁকে।

একবার কাজল-অজয় দেবগণের এক ছবির শুটের সময় বেঞ্চে শুতে হয়েছিল অভিষেককে। নিজের ঘর ছেড়ে দিয়েছিলেন দুই তারকার জন্য। তবে ওই সময়টা খুব বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। পরিস্থিতির সঙ্গে সঙ্গে সবটাই কাটিয়ে উঠেছিল বচ্চন পরিবার। সেই সময় বলিউডও পেয়েছিল জুনিয়র বচ্চনকে। রিফিউজি ছবি দিয়ে অভিনয় জগতে হাতেখড়ি হয় অভিষেকের।

তবে তখনও অমিতাভ বচ্চন দেনায় ডুবেছিলেন। পরবর্তীতে সোনি সংস্থার উদ্যোগে ও মহব্বতে ছবির জন্য ঘুড়ে দাঁড়ান বিগ বি। আবারও হাতে আসে টাকা। তখন সব দেনা পরিশোধ করে আবারও ছন্দে ফেরে বচ্চন পরিবার। তবে অভিষেকের কেরিয়ারের শুরুটা মোটেও সুখকর ছিল না।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ