সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫৭ অপরাহ্ন
Uncategorized

ছোট ছোট অপ্রাপ্তি গুলো ভুলতে ভুলতেই আজ এখানে পৌঁছানো: চঞ্চল চৌধুরী

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

নন্দিত অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। সাবলীল অভিনয় দিয়ে এরইমধ্যে শোবিজে আলাদা একটি গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করেছেন তিনি। বড়পর্দায় অভিষেক হয়েও করেছেন বাজিমাত। চঞ্চলের কাজ মানে ভিন্ন কিছু। বর্তমানে চঞ্চল দুই পর্দাই দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। এত খ্যাতি ও জনপ্রিয়তার মাঝেও চঞ্চল খুবই সাধারণ জীবনযাপন করেন, সেটা অনেকেই জানেন। ছেলে শুদ্ধের নতুন বইয়ের মলাট লাগাতে গিয়ে নিজের জীবনের এক গল্প শেয়ার করেছেন এই অভিনেতা। অন্তর্জালে জানিয়েছেন, দুই কারণে স্কুলজীবনে কখনো নতুন বই পড়া হয়নি তাঁর।

ফেসবুকে এক দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি লিখেছেন, স্কুল জীবনে নতুন ক্লাশে ওঠার পর বইয়ে মলাট লাগানোর কথা সবারই মনে থাকার কথা। আমরা যারা গ্রামের স্কুলে পড়ালেখা করেছি,তাদের অভিজ্ঞতা একটু ভিন্ন রকমের। নতুন ক্লাশের নতুন বই, মলাট লাগানো….এগুলো ছিলো উৎসবের মত। পুরনো ক্যালেন্ডার/সিমেন্টের ব্যাগ দিয়ে নতুন ক্লাশের বইয়ে মলাট দেয়া, এখনোও স্মৃতির অংশ হয়ে আছে। যাদের নতুন বই কেনার সামর্থ্য ছিল, তাদের আনন্দটা ছিল ভিন্ন মাত্রার। দুটি কারনে আমার কখনো স্কুল জীবনে নতুন বই পড়া হয়নি। প্রথমত: আমার আগের বোনটি আমার এক ক্লাশ উপরে পড়তো, পুরো স্কুল জীবন ওর পুরনো বই আমাকে পড়তে হয়েছে। দ্বিতীয়ত: দারিদ্রতার কারনে আমাদের বাবার সামর্থ্যই ছিলো না, নতুন বই কিনে দেবার। নতুন ক্লাশে ওঠার পর যখন দেখতাম,সহপাঠীরা নতুন চকচকা বই পড়ছে,তখন খুব লোভ হতো। আর সে কারনেই প্রায় কোমায় চলে যাওয়া,পুরনো বইগুলোকে খুব সুন্দর করে মলাট লাগিয়ে, বইয়ের ক্ষত আর নিজের মনের ক্ষত, দুটোই ঢেকে রাখতে রাখতেই স্কুল জীবন পার করেছি।

তিনি আরও লিখেছেন, অবশ্য শান্তি একটাই, পুরনো ছেড়া বই পড়েও, নতুন বই পড়া সহপাঠীদের সাথে পাল্লা দিয়ে ক্লাশে প্রথম বা দ্বিতীয় হতাম। আসলে ছাত্র হিসেবে তো খারাপ ছিলাম না! আজ যখন আমার ছেলে শুদ্ধ’র  নতুন ক্লাশের নতুন বইতে, আদর করে মলাট লাগিয়ে দিচ্ছিলাম, তখন সত্যি উৎসব মনে হচ্ছিলো। ছোট বেলার এ রকম অনেক ছোট ছোট অপ্রাপ্তি গুলো ভুলতে ভুলতেই আজ এখানে পৌঁছানো। আমাদের সন্তানেরা, যদি শুধু এটুকু বুঝতে পারতো যে, সারা জীবন ছেড়া বই পড়ে, তোমাদের বাবারা তোমাদের হাতে এক সেট নতুন বই তুলে দিতে পেরে নিজেদের অপ্রাপ্তির সব কষ্ট ভুলে যায়, তাহলে বোধ হয় ওরা সত্যিই মানুষ হবার প্রেরনা পেতো। তাহলে আমাদের জীবন সংগ্রামও সার্থক হতো। এখনো আমি, আমার ছোটবেলার সেই নতুন বই পড়া সহপাঠীদের চেয়ে, ছেড়া বা পুরনো বই পড়া সহপাঠীদেরকেই বেশী খুঁজে বেড়াই। আর মনে মনে প্রার্থনা করি, আমাদের সন্তানেরা মানুষ হোক।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ