মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
Uncategorized

কিশোর-লতা’র গান গেয়ে মুগ্ধতা ছড়ালেন অভি-তিন্নি

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৯ আগস্ট, ২০২০

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যনগর বাজারের গিয়াস উদ্দিন আহমেদ ও রুশেদা পারভীনের ছেলে সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীনের ছোটবেলা থেকে গানের প্রতি অদম্য ভালোলাগা ভালোবাসা থাকলেও একজন গায়ক হিসেবে সবচেয়ে বেশি প্রকাশ ঘটেছে ২০২০’র করোনাকালে। সিলেট ক্যাডেট কলেজে পড়াশোনার সময়ে প্রথম মঞ্চে গান করেন তিনি। ক্যাডেট কলেজেরই শিক্ষক মো: আবুল হোসেনের অনুপ্রেরণায় ওস্তাদ রাম কানাই দাশের কাছে সঙ্গীতে তালিম নেন। ২০১৭’র সেরা কন্ঠের শীর্ষ’দের মধ্যে অন্যতম একজন কানিজ খাদিজা তিন্নি। অভি ও তিন্নি এ বছরের শুরুতে ফেসবুকে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা ও আলাউদ্দিন আলীর সুর করা রফিকুল আলম ও সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া ‘তুমি আমার মনের মানুষ’ গানটি গেয়ে ফেসবুকে আপলোড করেন। সেই সময় দু’জনই গায়কীর জন্য প্রশংসিত হন। প্রায় ছয় মাস পর আবারো দু’জন কিশোর কুমার ও লতা মুঙ্গেশকরের গাওয়া ‘আধো আলো ছায়াতে’ গানটি গেয়ে গত ১৬ আগস্টে বিকেলে অভি মঈনুদ্দীন তার নিজের ফেসবুক ওয়ালে প্রকাশ করেন। ফেসবুকে প্রকাশের পর থেকেই অভি ও তিন্নির গায়কীর প্রশংসা করছেন যারাই গানটি দু’জনের কন্ঠে শুনছেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী কনকচাঁপাও গায়কীর প্রশংসা করেন। দু’জনের গায়কীর আরো প্রশংসা করেন সঙ্গীতশিল্পী পলাশ, সোহেল মেহেদী, অণিমা রায়, রাজীব, ইউসুফ, মেহরাব, মরিয়ম মারিয়া, বনি, প্রমি, কাজী সোমা, প্রিায় ডায়েস, অনন্যা, শাহীনা হক, নোলক, মোমিন, মিলা, আরশিনা প্রিয়া, যন্ত্রশিল্পী রুপতনু রুপু, দীপন, অভিনয়শিল্পী বকুল, টনি ডায়েস, সেঁওতি, আলভী, মিলি বাশার, নিথর মাহবুব, রেশমী, ডায়না, স্বর্ণলতা, উপস্থাপিকা হাসনা হেনা, শান্তা জাহান, অধরা জাহান, পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী, সঞ্জয় বড়ুয়া, রুমান রুনি, নিশান’সহ আরো অনেকে।

অভি মঈনুদ্দীন বলেন, ‘সত্যি বলতে কী মাত্র তিনদিনের জন্য সিলেট থেকে জরুরী কাজে ঢাকায় গিয়েছিলাম। এই প্রজন্মের শিল্পীদের মধ্যে তিন্নির কন্ঠ আমার ভীষণ প্রিয়। তাই তার সঙ্গে গাইতেও আমি বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। ‘আধো আলো ছায়াতে’ গানটি আমি জীবনে প্রথম গাইলাম। তিন্নি এবং তার ছোট ভাই কৌশিক আমাকে ভীষণ সহযোগিতা করেছে। এই গানে আমাদের পরিবেশনা সবার এতো ভালো লাগবে তা ভাবতেও পারিনি। কারণ আমি পেশাদার শিল্পী নই। মনের আনন্দে গান গাই।’

তিন্নি বলেন, ‘অভি ভাইকে একজন সাংবাদিক হিসেবেই আমি চিনি জানি। কিন্তু তিনি তার কন্ঠে যে এতো মাধুর্যতা আছে তা আমার জানা ছিলো না। তার সঙ্গে গাইতেও আমি ভীষণ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। আমরা দু’জনই গানটি বেশ আন্তরিকতা দিয়ে গাওয়ার চেষ্টা করেছি। এভাবে গান পরিবেশনা আসলে শুধু নিজের মনের ভালোলাগা থেকেই গাওয়া। সবার ভালো লাগলে সেটা বাড়তি পাওনা। তবে এটা সত্যি এই ধরনের গান গাওয়ার পর গানে আরো অধিক সচেতন হবারই অনুপ্রেরণা যোগায়।’

উল্লেখ্য, অভি মঈনুদ্দীন দীর্ঘ দুই দশক ধরে বিনোদন সাংবাদিকতা করে আসছেন। সিলেট ক্যাডেট কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় তিনি বোর্ডে স্ট্যা- করেন (সম্মিলিত মেধা তালিকায় ১৮’তম স্থান অধিকার করেন)। গানে তার অনুপ্রেরণা এন্ডু কিশোর ও কিশোর কুমার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ