বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০২ পূর্বাহ্ন
Uncategorized

জায়েদের সাথে পপির বিয়ের গুঞ্জন, অবাস্তব বললেন পপি

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০

জমজমাট প্রতিবেদক: কোনো একটি কবরস্থানে গিয়ে কবর জিয়ারত করছেন হালের আলোচিত অভিনেতা ও শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, তার একটু পেছনেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন চিত্রনায়িকা পপি। রাতে একসঙ্গে জন্মদিনের কেক কাটা, একে অন্যের মুখে কেক তুলে দেয়া। দুজনের একসঙ্গে তোলা কিছু ঘনিষ্ঠ ছবি- এসব দেখে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে পড়েছে জায়েদ খান ও পপির বিয়ের খবর। সেসব ভিডিওতে দাবি করা হচ্ছে, ২০১৫ সালের থার্টি ফাস্ট নাইটের একটি পার্টিতে তারকা জুটি ওমর সানি-মৌসুমীসহ অনেকের সঙ্গে জায়েদ-পপিও উপস্থিত ছিলেন। সেখান থেকে তাদের ঘনিষ্ঠতা শুরু। দুই বছর প্রেম করার পরে ২০১৭ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি জায়েদ-পপি বিয়ে করেন। সেই বিয়েতে তাদের সকল ঘনিষ্ঠরাই সহযোগিতা করেছিলেন। শুধু তাই নয়, সবাই বিষয়টি গোপনও রাখেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওগুলোতে এও দাবি করা হচ্ছে, পপি ও জায়েদ খান যে স্বামী-স্ত্রী, এটা মিডিয়ার সবাই জানেন। বিয়ের পর এ জুটি নাকি ৮/১ নিউ ইস্কাটন রোডে একসঙ্গে থাকতেও শুরু করেন। বিয়ের এক বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে তারা যে কেকটি কেটে বিবাহবার্ষিকী পালন করেন, তার ছবিও ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পপির সহযোগিতার কারণেই নাকি জায়েদ টানা দুই বার শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের পদে বসতে পেরেছেন। কিন্তু সম্প্রতি দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে জায়েদকে প্রমোট করার কথা স্বীকার করলেও তাকে বিয়ে করার খবর একেবারেই মিথ্যা ও বানোয়াট বলে উড়িয়ে দিয়েছেন একাধিক বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা পপি।

সেই সাক্ষাৎকারে জায়েদের সঙ্গে বিয়ের প্রশ্নে তিনি বলেন, বিয়েটা কে দিল? জায়েদ খানের সঙ্গেই বা কেন! আমি জোর গলায় বলছি, এসব ফালতু, অবাস্তব, অকল্পনীয় কথা। আমি এখনো অবিবাহিত। তার দাবি, শাকিব খানের সঙ্গে অভিমানের জেরে রিয়াজ, ফেরদৌস, শাবনূর ও নিপুণদের সঙ্গে তিনিও শিল্পী সমিতির নির্বাচনে জায়েদ খানকে সমর্থন করেছিলেন।

শাকিবের সঙ্গে অভিমানের বিষয়ে পপি বলেন, জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর শাকিব আমাদের সবাইকে এড়িয়ে চলতে থাকে। মান্না ভাই মারা গেলে ওর একচেটিয়া রাজত্ব গড়ে ওঠে। ও অপুকে নিয়েই এগোতে থাকে। এসব কারণে আমাদের মধ্যে অভিমান। সেই জন্যই জায়েদকে শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাপোর্ট করি।

জায়েদকে প্রমোট করার বিষয়ে পপি বক্তব্য বলেন, ফিল্মে আমার মামা-খালু ছিল না। নিজের যোগ্যতা এবং রাজ্জাক, শাবানা, ববিতা, ফারুক, আলমগীর, হুমায়ুন ফরীদিদের মতো কিংবদন্তিদের সহযোগিতায় ও বিভিন্ন পরামর্শ মেনে কাজ করে এতদূর এসেছি। এ জন্য আমার মধ্যেও নতুনদের সহযোগিতা করার মানসিকতা রয়েছে। জায়েদ খানের বিষয়টাও তেমন। শাবনূর ও অমিত হাসান আমার কমন ফ্রেন্ড। তাদের অনুরোধেই জায়েদকে সাহায্য করি।

এর আগে নায়ক শাকিল খানকেও পপি বিয়ে করেছিলেন বলে খবর রটেছিল। সে বিষয়েও কথা বলেন নায়িকা। পপি দাবি করেন, আমি কখনোই এসব নিয়ে কিছু বলিনি। সে (শাকিল খান) হয়তো আমাকে পছন্দ করত, ভালোবাসতো। এটা তার ব্যাপার ছিল। যতবারই আমি নায়কদের হেল্প করতে চেয়েছি, ততবারই বিয়ের খবর ছড়িয়েছে। সমসাময়িকদের মধ্যে আমি অবিবাহিত ছিলাম বলেই শাকিলের সঙ্গে বিয়ের খবর রটেছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ