মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
Uncategorized

লোকসঙ্গীত শিল্পী আব্দুল আলীমের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ জুলাই, ২০২২

জমজমাট ডেস্ক

 

উপমহাদেশের প্রখ্যাত লোকসঙ্গীত শিল্পী আব্দুল আলীমের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করা হয়েছে। দিনটি স্মরণে ডাক অধিদপ্তর স্মারক ডাকটিকিট ও উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেছে। এ উপলক্ষে একটি ডাটাকার্ডও প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ জুলাই) ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশ সচিবালয়ের নিজ দপ্তরে ১০ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট ও একই মূল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেন।

এছাড়া ৫ টাকা মূল্যমানের একটি ডাটাকার্ড উদ্বোধন করে এ সংক্রান্ত একটি সীলমোহর ব্যবহার করেন মন্ত্রী জব্বার। পরে এ বিষয়ে একটি বিবৃতিও দেন তিনি।

বিবৃতিতে মোস্তাফা জব্বার বলেন, বাংলা লোকগানের উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন শিল্পী আবদুল আলীম। তার কণ্ঠের মাধুর্যে লোকসংগীত পৌঁছে গেছে অন্য এক উচ্চতায়। তার গানে জীবন, জগৎ ও ভাববাদী চিন্তা একাকার হয়ে যায়। পেশাগত জীবনে তিনি ছিলেন ঢাকা সংগীত কলেজের লোকগীতি বিভাগের অধ্যাপক।

কৈশোরেই গায়ক হিসেবে নাম করেছিলেন উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মাত্র ১৩ বছর বয়সে তার গানের প্রথম রেকর্ড প্রকাশিত হয়। পল্লীগীতি, ভাটিয়ালি, দেহতত্ত্ব, মুর্শিদী আর ইসলামী- এসব গানের শিল্পী হিসেবে আজও তিনি অপ্রতিদ্বন্দ্বী। কণ্ঠস্বরের অসাধারণ ঐশ্বর্য নিয়ে তিনি জন্মেছিলেন।

মরমী শিল্পী আবদুল আলীমের বর্ণাঢ‌্য জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে তিনি বলেন, দেশভাগের পর আবদুল আলীম ঢাকায় চলে আসেন এবং রেডিওতে স্টাফ আর্টিস্ট হিসেবে গান গাইতে শুরু করেন। টেলিভিশন সেন্টার চালু হলে সেখানেও তিনি সংগীত পরিবেশন শুরু করেন।

বাংলা গানের এই কিংবদন্তি শিল্পী ১৯৩১ সালের ২৭ জুলাই পশ্চিম বাংলার মুর্শিদাবাদ জেলার তালিবপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৪ সালের ৫ সেপ্টেম্বর ভক্তকুলকে কাঁদিয়ে মাত্র ৪৩ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কালজয়ী এই শিল্পী।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ