রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৮:২৯ অপরাহ্ন
Uncategorized

আমার হারমোনিয়াম কেনার টাকা নানা দিয়েছিল: মোমিন

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

মোমিন বিশ্বাস। অনবদ্য গায়কী দিয়ে ইতিমধ্যে গুণী সঙ্গীত পরিচালকদের প্রিয়পাত্র হয়েছেন। ধীরে ধীরে শ্রোতারাও তাকে প্লেব্যাক গায়ক হিসেবে গ্রহণ করছেন। প্রথাগত হৈ হৈ রব থেকে একটু আলাদা। মৃদুভাষী। সময়ের সঙ্গে নিয়ম করে প্রিয় হারমোনিয়াম নিয়ে অধ্যাবসায় তার নিত্যসঙ্গী। গুরু প্লেব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতেও সেটা কিছুটা থমেকে গেলেও নতুন উদ্যোমে শুরু করতে গিয়েও ফের দুঃসংবাদে হতবিহ্বল মোমিন। গত শুক্রবার (২৫ সেপ্টম্বর) সন্ধ্যায় প্রাণের চেয়ে প্রিয় ৮০ বছর বয়সী নানাকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ মোমিন। অন্তিমযাত্রায় দেখা হয়নি প্রিয় নানা ভাইয়ের সঙ্গে। সেই আক্ষেপ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্মৃতিচারণা করেছেন।

মোমিন লিখেন- নানা বাড়িতে মাটির দোতলা বাড়ির ছোট্ট একটি ঘরে আমার জন্ম! জন্মের পর ৮-১০বছর নানা বাড়িতেই কেটেছে! এদিক দিয়ে ভাগ্যবান যে নানা নানীর আদর সোহাগ পেয়েছি! শৈশবে যাবতীয় আবদারের সব কিছুই ছিল আমার আদরের নানা! নানার বড্ড আদরের নাতী ছিলাম আমি! নানার সঙ্গে সবসময়ই প্রচন্ড জেদ করতাম! নানা আমাকে একবার কাঁধে নিলে আর নামতে চাইতাম না, সারাদিন কাঁধের উপর আমাকে বয়ে নিয়ে নানা এখানে সেখানে ছুটে বেড়াতো! প্রচন্ড পরিশ্রমী এবং অত্যন্ত কর্মঠ একজন মানুষ ছিলেন আমার নানা! আপাদমস্তক একজন সহজ সরল এবং সৎ মানুষ ছিলেন জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত! এমন ভালো মানুষ খুব কমই দেখেছি!

তিনি বলেন, আমার বাপ দাদার বংশে কেউ গান গাওয়া তো দূরের কথা কখনো গান ও শুনতেন না কিন্তু জন্মের পর থেকে দেখেছি নানার ঘরভর্তি ক্যাসেট থাকতো (আগে ছিল ভিসিআর)! বাড়িতে যতক্ষণ থাকতো সারাক্ষণ নানা গান শুনতো, পল্লীগীতিই বেশি শুনতো নানা! নানা নিজেও খুব ভালো গান গাইতে পারতো! আমি যখন গান শেখা শুরু করেছিলাম তখন আমার হারমোনিয়াম কেনার টাকা আমার নানা-ই আমাকে দিয়েছিল! যা আজও আমার একমাত্র হারমোনিয়াম হিসেবে সযত্নে প্রতিদিনের চর্চায় আমার সঙ্গী হয়!

মোমিন বলেন, মাস কয়েক আগে নানার ক্যান্সার ধরা পড়েছিল, কিন্তু বিষয়টি পরিবারের সবাইকে জানতে দিইনি কারণ আমার মা নানার একমাত্র মেয়ে, আম্মার তখন সবেমাত্র একটা ক্রিটিকাল অপারেশন শেষ হয়েছে! প্রথিতযশা চিকিৎসক ডা. প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস নানার চিকিৎসার দেখভাল করছিলেন! সৃষ্টির নিয়ম আর আল্লাহর নির্ধারিত সময়েই নানা চলে গেলেন! নানা চলে যাবার দুদিন আগে আমাকে দেখতে চেয়েছিলেন কিন্তু নানার সেই ইচ্ছে পূরণের সুযোগ ও পেলাম না এই যন্ত্রণা আমৃত্যু বয়ে বেড়াব…..।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ