রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০২:০৬ পূর্বাহ্ন

‘বিজয়া’এক মায়ের লড়াইয়ের গল্প!

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৮ জুলাই, ২০২৪

জমজমাট ডেস্ক

সদ্যই মুক্তি পেয়েছে হইচই প্ল্যাটফর্মের নতুন ওয়েব সিরিজ ‘বিজয়া’। এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। ছাত্র মৃত্যুর ঘটনা, র‌্যাগিং এবং এক মায়ের লড়াইয়ের গল্প উঠে এসেছে এখানে।

গল্পটি নীলাঞ্জন বসু এবং তার মা বিজয়া বসুকে কেন্দ্র করে। নৈহাটির ছাপোষা মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে নীলাঞ্জন। সে চায় না কলকাতায় গিয়ে পড়াশোনা করতে। কিন্তু মায়ের স্বপ্ন আর জেদের কাছে বাধ্য হয় । কিন্তু কলেজে যাওয়ার মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই বাড়িতে তাঁর গুরুতর আহত হওয়ার এবং তিন তলা থেকে পড়ে যাওয়ার খবর আসে। সাধারণ সুইসাইডের কেস থেকে একজন মা কী করে আসল সত্যি এবং অপরাধীদের বের করে আনে, নীলাঞ্জনেরই বা কী হয় সেটাই দেখা গেছে এই সিরিজে।

সম্প্রতি ‘বিজয়া’ সিরিজটি নিয়ে ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা মায়েরা তাঁদের সন্তানকে দূরে পাঠানোর ভয়, কর্ম বা পড়াশোনার সূত্রে দূরে থাকা সন্তানকে নিয়ে মন খোলা পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এবার তাতে সামিল হলেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ও।

স্বস্তিকা ইনস্টাগ্রামে তাঁর মেয়ের সঙ্গে একগুচ্ছ ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘সবাই বিজয়া নিয়ে এত কিছু বলছে, সবাই নিজেদের সন্তানদের কথা বলছে, তারা দূরে থাক বা কাছে, আমার সন্তানও কত দূরে থাকে, সবার কথা শুনে আমারও মন কেমন করছে… কতদিন দেখতে পাই না, ওই ভিডিও কলটাই জীবন এর ধন।’

‘মাম্মাই- সোনা মেয়ে আমার @anwesha24 ❤️। পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো মেয়ে। মায়েরা একইরকমই, কোথাও গিয়ে আমরা সবাই একে অপরের সঙ্গে জড়িয়ে আছি।’

এক অনুরাগী স্বস্তিকার পোস্টে মন্তব্য করেন, ‘এই পোস্টটা পড়ে আমি আমার মাকে মিস করছি। কী সুন্দর।’ দ্বিতীয়জন লেখেন, ‘সত্যি মায়েরা সব পারে। বিজয়াও পেরেছে।’ তৃতীয়জন লেখেন, ‘সেরা কথা বলেছো। কেও নিজের সন্তানের কথা বললেই আমাদের নিজেদের সন্তানের কথা মনে পরে।’

খুব অল্প বয়সে প্রমিত সেনের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। তবে সন্তান গর্ভে থাকতেই আলাদা হন তাঁরা। এরপর একাই মানুষ করেছেন তিনি অন্বেষাকে। অভিনয়ের পাশাপাশি, তিনি মা হিসেবেও এক নম্বরে।

আসলে অভিনেত্রী নিজেও দীর্ঘ সময় দূরে রয়েছেন মেয়ের থেকে। পড়াশোনার জন্য বিদেশে থাকেন স্বস্তিকার এক মাত্র মেয়ে, যে কিনা তাঁর নয়নের মণি।

হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকে বিজয়া নিয়ে স্বস্তিকা জানান, ‘এই গল্পে দেখানো হয়েছে নৈহাটি থেকে কলকাতা। কিন্তু আমার জীবনেও তো একটা কলকাতা থেকে লন্ডন আছে। তাই এই চরিত্রটা করতে গিয়ে আরও বেশি করে সন্তান এবং মায়ের মধ্যে যে নারীর টান তা অনুভব করেছি। সেই জন্য আমি কাজটা করতে গিয়েও ইমোশনালি খুব বেশি করে জড়িয়ে গিয়েছিলাম। শুধু অভিনেত্রী বলে নয়, আমার মাতৃ সত্ত্বাটাও এখানে অনেকটা কাজ করেছিল। আমার ক্যারিয়ারে এই চরিত্রটা একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ হিসেবে থেকে যাবে।’

বলাই বাহুল্য এই সিরিজ দেখলে যে কারওই গত বছর ঘটে যাওয়া যাদবপুর কাণ্ডের কথা মনে পড়বে। একই সঙ্গে এই সিরিজের মা গানটির সঙ্গে শেষ দৃশ্য মনে রাখার মতো।

এই ওয়েব সিরিজটি পরিচালনা করেছেন সায়ন্ত ঘোষাল। এতে মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, সাহেব চট্টোপাধ্যায়, দেবদত্ত রাহা, জিৎ সুন্দর, প্রমুখ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ