রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন

মেহজাবিনকে ‘ভরে দেয়ার’ হুমকি

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪

জমজমাট প্রতিবেদক

বাংলা নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, মডেল ও গ্ল্যামারগার্ল মেহজাবিনকে উদ্দেশ্য করে ‘ভরে দেয়ার’ হুমকি সম্বলিত একটা ইউটিউব কনটেন্টে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে লাখলাখ ভিউয়ার। আর এ ঘটনায় প্রতিবাদের বদলে খোদ মিডিয়া পাড়াতেই চলছে নানা কথাবার্তা।

সম্প্রতি ফ্রান্সে বসবাসরত ইউটিউবার পিনাকী ভট্টাচার্য একটা ভিডিওতে মেহজাবিনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “এই যে এই যে মাইয়া তুমি, তুমি প্যারাসুটের বিজ্ঞাপন করছো না? তুমি মাইয়া মানুষ বইলা এখনও কিছু কইলাম না। তবে নেক্সট টাইম ইন্ডিয়ান কোন পন্যের বিজ্ঞাপন করলে হান্দায়া দিমু, ভইরা দিমু।”

একই ভিডিওতে পিনাকী অভিনেতা অপূর্বকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “এই তুই কে? এই….. তোরে না কইছিলাম কলকাতার বিজ্ঞাপন করিস না, এই তুই হইচই এর ক্যাম্পেইন করিস ক্যা, তোর হিরোগিরি কিন্তু তোর……। জানিস না আমরা হইচই বর্জন করছি।”

“ওরে যেখানে দেখবেন, ইউটিউবে যেই নাটকে দেখবেন সেখানে গিয়ে নেগেটিভ রিভিউ দিবেন।”

“ওর পোস্টার দিয়া হোল্ডিং দিয়া কলকাতা শহর ভইরা গেছে। টাকা পয়সা তো ভালোই কামাইছো, তারপরও দাদাদের… ভালো লাগে ক্যা।”

“তোরে সাইজ করা লাগবে, মাইন্ড ইট। তোর আশ্পর্দা আমরা মনে রাখবো। তোরে রাজারবাগের ঘোড়া দিয়া…”

“আমরা ক্ষুদ্র ভ্রাতা ভগ্নিদের পারমিশন দিলাম ওর টুইটার, ফেসবুক, সোশ্যাল মিডিয়ায় ওরে ব্লক কইরা দিবেন। ওরে বাধ্য করবেন সব বন্ধ করতে। ওরে জয়বাংলা কইরা দিবেন।”

উল্লেখ্য গত বেশ কয়েক বছর যাবত ফ্রান্সে বসে পিনাকী ভট্টাচার্য ক্রমাগত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ এবং দেশের অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সম্পর্কে প্রকাশের অযোগ্য ভাষায় একের-পর-এক কন্টেন্ট ইউটিউব, ফেইসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় প্রচার করে আসলেও এবিষয়ে সরকার ও রাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো রহস্যজনক নীরব ভূমিকা পালন করছে। এমন কথাও শোনা যায় সরকারেরই ক্ষমতার কিছু ব্যক্তি পিনাকীর সাথে যোগাযোগ রাখছেন এবং তাদের সম্পর্কে কোনো কন্টেন্ট না করার অনুরোধ জানিয়ে পিনাকীকে প্রতি মাসেই টাকা দিচ্ছেন। অন্যদিকে বিএনপির অনেক নেতাই প্রতিমাসে পিনাকীকে মাসোয়ারা দেন।

হঠাৎ করে অপূর্ব এবং মেহজাবিনকে উদ্দেশ্য করে পিনাকীর এমন প্রকাশ্য হুমকির বিষয়ে বিনোদন জগৎ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কয়েকদিন আগেই কণ্ঠশিল্পী ও বিএনপির নেতা আসিফ আকবর ঢাকঢোল পিটিয়ে মুম্বাই গিয়ে সেখানকার মিউজিক ভিডিওতে কন্ঠ দিয়েছেন। ভারতীয় কণ্ঠশিল্পী অনুরাধা পাডোয়ালের সাথে দেখা করে ওনার পা ছুঁয়ে সালাম করে আশীর্বাদ নিয়ে এসেছেন। এক্ষেত্রে পিনাকী টু শব্দও করেননি। এমনকি আসন্ন ঈদুল আযহায় ভারত-বাংলাদেশ যৌথ বিনিয়োগে নির্মিত ছায়াছবি তুফান এর বিষয়েও পিনাকী নীরব। কারণ, পিনাকী মূলত আক্রমণ করছেন আওয়ামীলীগ ঘরানার লোকদের।

অপূর্ব ও মেহজাবিনকে দেয়া হুমকি প্রসঙ্গে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন বিনোদন সাংবাদিক বলেন, “অপূর্ব’র বিএনপি নেতা হেলাল খানের সাথে দারুন দহরম-মহরম। এমনকি নাটকের ক্ষেত্রে তিনি হেলাল খানের কোম্পানিকেই বরাবর প্রাধান্য দেন। অন্যদিকে মেহজাবিন আওয়ামীলীগ ঘরানার এটা কেউই বলবেনা। আমার তো মনে হয় পিনাকীকে দিয়ে ওরাই ভিডিও কন্টেন্টটা করিয়েছে আলোচনায় আসতে। না হয়, ওমন ভিডিও প্রকাশের পর তো ওদেরই আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা”।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ