রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০১:০৯ পূর্বাহ্ন

‘তুফান’-এর পর রায়হান রাফীর আগামী ছবিতে জিৎ?

জমজমাট ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৩ জুলাই, ২০২৪

জমজমাট ডেস্ক

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে রায়হান রাফী পরিচালিত “তুফান” সিনেমাটি। দেশির গন্ডি পেড়িয়ে শাকিব খান-মিমি চক্রবর্তীর এই জুটি অস্ট্রেলিয়া, কানাডা-সহ নানা দেশে ইতিমধ্যে ‘তুফান’ তুলেছে । রায়হান রাফীর তৃতীয় সিনেমা ‘তুফান’ ভারতে মুক্তি পাচ্ছে ৫ জুলাই। নতুন ভাবে চর্চা শুরু হয়েছে এই পরিচালককে ঘিরে। ‘পরান’, ‘সুড়ঙ্গ’, ‘তুফান’-এর পর চতুর্থ সিনেমাটিও যাতে ব্লকবাস্টার হয় তার হিসেব আগেই করে রেখেছে পরিচালক। গুঞ্জন উঠেছে, রাফির পরের ছবির নায়ক নাকি জিৎ।

আনন্দবাজার সূত্রে, খবরের সত্যতা জানতে পরিচালকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন, “ভারতের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় আরও ছবি তৈরি করার ইচ্ছে আছে। জিৎদা বাংলার সুপারস্টার। তাঁর সঙ্গে কাজ করতে পারলে খুবই ভাল লাগবে। কিন্তু বাংলা ইন্ডাস্ট্রির আরও অনেকেই আমার পছন্দের। তাই এখনই আলাদা করে কারও নাম উল্লেখ করার সময় আসেনি।”

‘তুফান’ দিয়ে টলিপাড়ায় পা রাখলেন রায়হান। প্রথম অভ্যর্থনা কেমন ছিল? “খুবই ভাল”, জানালেন তিনি। এও জানিয়েছেন, বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতারা আন্তরিক, পরিশ্রমী এবং পেশাদার। পাশাপাশি, তাঁরা গুণীদের কদর করেন। ফলে, কাজ করতে এসে কোনও অসুবিধে হয়নি। তার উপরে ভাষাও বাংলা। মনে হয় নিজের দেশে কাজ করছি, সব সময় এই অনুভূতিটাই কাজ করেছে। পরিচালকের মতে, সেই জন্য কাজটাও ভাল হয়েছে। আর সিনেমার নায়িকা মিমি চক্রবর্তী? ফোনের ও পারে লাজুক হাসি হেসে বললেন, “খুব সুন্দরী” একদম মাটির মানুষ। শুটিংয়ের সময় কোনও বায়না ছিল না তাঁর। পরিচালক বলেন, “কলকাতা তখন ৪৫ ডিগ্রি গরম। তখনও শাকিব আর মিমির মুখে হাসি! ওদের যে কষ্ট হচ্ছে সেটা একটুও বুঝতে দেয়নি আমাকে।

রায়হান বাণিজ্যিক ঘরানার ছবি ভালবাসেন। সেই ধরনের ছবিই বানান। সেই কারণেই কি দুই বাংলার প্রথম সারির তারকাদের নিলেন? পরিচালকের কথায়, “আরও কারণ আছে। এক, শাকিব পশ্চিমবঙ্গের অনেক নায়িকার সঙ্গে কাজ করছেন। কিন্তু মিমির সঙ্গে এর আগে কোন কাজ করেননি। তাই ওদের জুটি বানালাম। দর্শক নতুন জুটি দেখতে ভালবাসে। শাকিব-মিমির জুটি আবারও সেটা প্রমাণ করে দিয়েছেন। দু’জনেই দুই বাংলার সেরা অভিনেতা।” তৃতীয় সিনেমাটি যাতে সব দিক থেকে সেরা হয় সে জন্যই দুই বাংলার নায়ক-নায়িকা নিয়েছি। ছবির প্রযোজকও দুই বাংলার।

শুটিং করেছি প্রয়াগরাজ, কলকাতা, বাংলাদেশ মিলিয়ে। রায়হানের বক্তব্য, “ছবি তৈরির সময় কোনও সমঝোতা করিনি। যেখানে যা দরকার সবটাই দিয়েছি। সেই জন্য তিনি দুই বাংলার ইন্ডাস্ট্রিকে এক হয়ে কাজ করার অনুরোধ জানিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে তিনি উদাহরণ দেন দক্ষিণী বিনোদন দুনিয়ার। দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি এক জোট হয়ে কাজ করছে বলেই ওদের একের পর এক ছবি বাণিজ্যিক দিক থেকে সফল হচ্ছে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2018 jamjamat.net
ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট : উইন্সার বাংলাদেশ